ঝড়ে কক্সবাজারে ৬ ট্রলার ডুবি, নিখোঁজ ৮০ জেলে ইকরাম চৌধুরী টিপু

১৩ জুন ২০১৭, ২৩:১৫
কক্সবাজারে নিম্নচাপের প্রভাবে জোয়ারে অন্তত ২০টি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। ঝড়ো হাওয়ায় বিধ্বস্ত হয়েছে শতাধিক বসতবাড়ি। উত্তাল সাগরে ডুবে গেছে ছয়টি মাছ ধরার ট্রলার। নিখোঁজ আছেন অন্তত ৮০ জন জেলে। উদ্ধার হয়েছে একজন জেলের লাশ।

আজ মঙ্গলবার সোনাদিয়া পয়েন্ট থেকে ওই জেলের লাশ উদ্ধার করা হয়। তবে ওই জেলের নাম জানা যায়নি।

Advertisement
স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছে, দুইদিন ধরে গ্রামগুলো প্লাবিত হয়েছে। সেন্টমার্টিনে বিধ্বস্ত হয়েছে অন্তত ৩০টি বসতবাড়ি। সেন্টমার্টিনের পর্যটন জেটির ওপর দিয়ে ঢেউয়ের আঘাত উপচে পড়ছে। দ্বীপের নিম্নাঞ্চল ডুবে গেছে জোয়ারের পানিতে।
লাবণী পয়েন্ট থেকে ‘মায়ের দোয়া’ নামের একটি মাছ ধরা ট্রলারের ১২ জন জেলেকে উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এদের মধ্যে চারজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।
কক্সবাজার সদর হাসপাতালের চিকিৎসক মুবিনুল হক বলেন, ‘১২ জনের মধ্যে চারজন ভর্তি আছে। আটজন প্রাথমিক চিকিৎসার পর বাড়ি চলে গেছে।’
জেলা বোট মালিক সমিতির সংগঠনিক সম্পাদক মোস্তাক আহমদ জানান, ছয়টি মাছ ধরা ট্রলার ডুবে গেছে। ‘মায়ের দোয়া’ ট্রলারের দুজন নিখোঁজ ছিল। এদের একজনের লাশ আজ সকালে সোনাদিয়া পয়েন্ট থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। অন্য পাঁচটি ট্রলারের কোনো খবর নেই। এসব ট্রলারের অন্তত ৮০ জন জেলে নিখোঁজ।
এদিকে জেলার ধলঘাটা, কুতুবদিয়া, সেন্টমার্টিন ও শাহপরীর দ্বীপের শতাধিক গ্রাম জোয়ারের পানিতে ডুবে গেছে।
স্থানীয় আবহাওয়া অফিস থেকে জানা যায়, নিম্নচাপের প্রভাবে সাগর উত্তাল আছে। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত মাছ ধরার ট্রলারসহ সব ধরনের নৌযানকে উপকূলের কাছাকাছি নিরাপদ অবস্থানে থাকতে বলা হয়েছে।

Advertisements

কালিয়কৈরে নবম শ্রেনীর ছাত্রীকে গনধর্ষণ

গাজীপুরের কালিয়াকৈরে সনাতন ধর্মাবলম্বী (হিন্দু সম্প্রদায়ের) এক স্কুল ছাত্রী ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত বিএনপি নেতার বখাটে ছেলে সুমনকে সিলেট থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। রবিবার সুমনকে কালিয়াকৈর থানায় আনা হয়। পরে তাকে গাজীপুর আদালতে প্রেরন করা হয়েছে। কালিয়াকৈর থানার ওসি মোঃ আব্দুল মোতালেব মিয়া গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
উল্লেখ্য , গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার ফুলবাড়ীয়া আক্কেল আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর সনাতন ধর্মাবলম্বী (হিন্দু সম্প্রদায়ের) এক ছাত্রী গত ২০ মে স্কুল থেকে বাড়ি ফিরছিল। পথে ফুলবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয় সংলগ্ন স্থানীয় বিএনপি নেতা শহীদ সরকারের বাসার কাছে পৌছে। এসময় ওই বিএনপি নেতার ছেলে সুমন ও তার ক’সহযোগীকে ওই ছাত্রীকে জোরপুর্বক একটি কক্ষে নিয়ে ধর্ষন করে। বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হলে স্থানীয় ইউপি’র এক মেম্বারসহ ক’প্রভাবশালী ব্যাক্তি স্থানীয় ভাবে মিমাংসার কথা বলে ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা চালায়। কিন্তু ১১দিন অতিবাহিত হলেও ধর্ষণের ঘটনার কোন বিচার হয়নি। অবশেষে বিচার না পেয়ে ধর্ষিতার বাবা-মা স্থানীয় সংসদ সদস্য এবং স্কুলের প্রধান শিক্ষককে লিখিতভাবে জানালে তারা থানায় মামলা করার পরামর্শ দেন। এরপ্রেক্ষিতে ধর্ষণের অভিযোগে ধর্ষিতার মা শিল্পী রানী বাদী হয়ে শুক্রবার রাতে সুমন ও তার সহযোগীকে আসামী করে কালিয়াকৈর থানায় মামলা দায়ের করে। পরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সিলেট থেকে সুমন সরকারকে গ্রেফতার করা হয়।

লেবাননে শান্তিরক্ষা মিশনে গেলেন নৌবাহিনীর১৩৫ সদস্য (চট্টগ্রাম প্রতিনিধি)

লেবাননে জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা মিশন ব্যানকন-৮-এ (ইউনিফিল)

যোগদানের জন্য নৌবাহিনীর ১৩৫ সদস্যের একটি দল

চট্টগ্রাম ছেড়ে গেছে। সোমবার (১২ জুন) রাতে দলটি শাহ

আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ত্যাগ করে। মঙ্গলবার

আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদফতরের (আইএসপিআর) সহকারী

পরিচালক সাইদা তাপসী রাবেয়া লোপা গণমাধ্যমে সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

পাঠিয়ে এ তথ্য জানিয়েছেন।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, লেবাননে মোতায়েন করা

নৌবাহিনীর জাহাজ ‘আলী হায়দার’ ও ‘নির্মূল’-এ যোগদানের জন্য

সোমবার নৌবাহিনীর একটি দল চট্টগ্রাম ছেড়ে গেছেন।

আগামী ২২ জুন ১৩৫ জন নৌ সদস্যের অন্য একটি দলও

লেবাননের উদ্দেশ্যে চট্টগ্রাম ত্যাগ করবে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, বোনৌজা ঈসা খান’র অধিনায়ক

কমডোর এম মুসা লেবাননগামী দলটিকে বিদায় জানান। এসময়

নৌবাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও লেবাননগামী নৌসদস্যদের

পরিবারের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, চট্টগ্রাম ত্যাগকালে বানৌজা ঈসা খান-এর

অধিনায়ক কমডোর এম মুসা তার বক্তব্যে লেবাননগামী

নৌসদস্যদের উদ্দেশ্যে সততা, নিষ্ঠা এবং পেশাগত দক্ষতার

মাধ্যমে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বাংলাদেশ নৌবাহিনী তথা দেশের

ভাবমূর্তি সমুন্নত ও উজ্জ্বল রাখার জন্য একযোগে কাজ করার

আহবান জানান।

/এমএ/

লেবাননে শান্তিরক্ষা মিশনে গেলেন নৌবাহিনীর১৩৫ সদস্য (চট্টগ্রাম প্রতিনিধি)

লেবাননে জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা মিশন ব্যানকন-৮-এ (ইউনিফিল)

যোগদানের জন্য নৌবাহিনীর ১৩৫ সদস্যের একটি দল

চট্টগ্রাম ছেড়ে গেছে। সোমবার (১২ জুন) রাতে দলটি শাহ

আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ত্যাগ করে। মঙ্গলবার

আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদফতরের (আইএসপিআর) সহকারী

পরিচালক সাইদা তাপসী রাবেয়া লোপা গণমাধ্যমে সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

পাঠিয়ে এ তথ্য জানিয়েছেন।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, লেবাননে মোতায়েন করা

নৌবাহিনীর জাহাজ ‘আলী হায়দার’ ও ‘নির্মূল’-এ যোগদানের জন্য

সোমবার নৌবাহিনীর একটি দল চট্টগ্রাম ছেড়ে গেছেন।

আগামী ২২ জুন ১৩৫ জন নৌ সদস্যের অন্য একটি দলও

লেবাননের উদ্দেশ্যে চট্টগ্রাম ত্যাগ করবে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, বোনৌজা ঈসা খান’র অধিনায়ক

কমডোর এম মুসা লেবাননগামী দলটিকে বিদায় জানান। এসময়

নৌবাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও লেবাননগামী নৌসদস্যদের

পরিবারের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, চট্টগ্রাম ত্যাগকালে বানৌজা ঈসা খান-এর

অধিনায়ক কমডোর এম মুসা তার বক্তব্যে লেবাননগামী

নৌসদস্যদের উদ্দেশ্যে সততা, নিষ্ঠা এবং পেশাগত দক্ষতার

মাধ্যমে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বাংলাদেশ নৌবাহিনী তথা দেশের

ভাবমূর্তি সমুন্নত ও উজ্জ্বল রাখার জন্য একযোগে কাজ করার

আহবান জানান।

/এমএ/

লেবাননে শান্তিরক্ষা মিশনে গেলেন নৌবাহিনীর১৩৫ সদস্য (চট্টগ্রাম প্রতিনিধি)

লেবাননে জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা মিশন ব্যানকন-৮-এ (ইউনিফিল)

যোগদানের জন্য নৌবাহিনীর ১৩৫ সদস্যের একটি দল

চট্টগ্রাম ছেড়ে গেছে। সোমবার (১২ জুন) রাতে দলটি শাহ

আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ত্যাগ করে। মঙ্গলবার

আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদফতরের (আইএসপিআর) সহকারী

পরিচালক সাইদা তাপসী রাবেয়া লোপা গণমাধ্যমে সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

পাঠিয়ে এ তথ্য জানিয়েছেন।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, লেবাননে মোতায়েন করা

নৌবাহিনীর জাহাজ ‘আলী হায়দার’ ও ‘নির্মূল’-এ যোগদানের জন্য

সোমবার নৌবাহিনীর একটি দল চট্টগ্রাম ছেড়ে গেছেন।

আগামী ২২ জুন ১৩৫ জন নৌ সদস্যের অন্য একটি দলও

লেবাননের উদ্দেশ্যে চট্টগ্রাম ত্যাগ করবে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, বোনৌজা ঈসা খান’র অধিনায়ক

কমডোর এম মুসা লেবাননগামী দলটিকে বিদায় জানান। এসময়

নৌবাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও লেবাননগামী নৌসদস্যদের

পরিবারের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, চট্টগ্রাম ত্যাগকালে বানৌজা ঈসা খান-এর

অধিনায়ক কমডোর এম মুসা তার বক্তব্যে লেবাননগামী

নৌসদস্যদের উদ্দেশ্যে সততা, নিষ্ঠা এবং পেশাগত দক্ষতার

মাধ্যমে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বাংলাদেশ নৌবাহিনী তথা দেশের

ভাবমূর্তি সমুন্নত ও উজ্জ্বল রাখার জন্য একযোগে কাজ করার

আহবান জানান।

/এমএ/

লেবাননে শান্তিরক্ষা মিশনে গেলেন নৌবাহিনীর১৩৫ সদস্য (চট্টগ্রাম প্রতিনিধি)

লেবাননে জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা মিশন ব্যানকন-৮-এ (ইউনিফিল)

যোগদানের জন্য নৌবাহিনীর ১৩৫ সদস্যের একটি দল

চট্টগ্রাম ছেড়ে গেছে। সোমবার (১২ জুন) রাতে দলটি শাহ

আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ত্যাগ করে। মঙ্গলবার

আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদফতরের (আইএসপিআর) সহকারী

পরিচালক সাইদা তাপসী রাবেয়া লোপা গণমাধ্যমে সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

পাঠিয়ে এ তথ্য জানিয়েছেন।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, লেবাননে মোতায়েন করা

নৌবাহিনীর জাহাজ ‘আলী হায়দার’ ও ‘নির্মূল’-এ যোগদানের জন্য

সোমবার নৌবাহিনীর একটি দল চট্টগ্রাম ছেড়ে গেছেন।

আগামী ২২ জুন ১৩৫ জন নৌ সদস্যের অন্য একটি দলও

লেবাননের উদ্দেশ্যে চট্টগ্রাম ত্যাগ করবে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, বোনৌজা ঈসা খান’র অধিনায়ক

কমডোর এম মুসা লেবাননগামী দলটিকে বিদায় জানান। এসময়

নৌবাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও লেবাননগামী নৌসদস্যদের

পরিবারের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, চট্টগ্রাম ত্যাগকালে বানৌজা ঈসা খান-এর

অধিনায়ক কমডোর এম মুসা তার বক্তব্যে লেবাননগামী

নৌসদস্যদের উদ্দেশ্যে সততা, নিষ্ঠা এবং পেশাগত দক্ষতার

মাধ্যমে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বাংলাদেশ নৌবাহিনী তথা দেশের

ভাবমূর্তি সমুন্নত ও উজ্জ্বল রাখার জন্য একযোগে কাজ করার

আহবান জানান।

/এমএ/

সন্তানের পিতৃ পরিচয়েরদাবিতে দ্বারে দ্বারেঅন্তঃসত্ত্বা দীপ্তি রাণী

১৩ জুন, ২০১৭ ১৯:৩৫:৫১

 ভোলা থেকে: ভালোবেসে বিয়ে করে প্রতারণার শিকার হয়ে এখন

দ্বারে দ্বারে ঘুরে বেড়াচ্ছেন অন্তঃস্বত্ত্বা গৃহবধূ

দীপ্তি রাণী দাস (১৯)। অনাগত সন্তানের পিতৃ

পরিচয়ের দাবিতে ভোলায় তার স্বামীর বাড়িতে ৮

দিন অনশন করেও কোন বিচার পাননি তিনি। এমনকি

প্রশাসনও কথা দিয়ে কথা রাখেননি। কোথাও কোন

বিচার না পেয়ে শেষ পর্যন্ত মঙ্গলবার দুুপুরে ভোলা

প্রেসক্লাবে এসে সাংবাদিকদের দ্বারস্থ হন গৃহবধূ

দীপ্তি। তার বাড়ি গাজীপুর জেলায়।

ভোলা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে

অন্তঃস্বত্ত্বা দীপ্তি রাণী দাস জানান, অনাগত

সন্তান ও তার স্বামীর স্বীকৃতি চেয়ে গত ৪ জুন

(রবিবার) ভোলার লালমোহনের শশুর বাড়িতে অনশন

করেন তিনি। তারপরেও কোন স্বীকৃতি পাচ্ছেননা

অন্তঃসত্ত্বা এ গৃহবধু। শশুর বাড়ির লোকজন

প্রভাবশালী হওয়াতে বার বার শশুর বাড়িতে

যাওয়ার চেষ্টা করেও ব্যার্থ হয়েছেন তিনি। এ

অবস্থায় আশ্রয়হীন হয়ে চরম মানবেতর তিন

কাটাচ্ছেন তিনি। বিচারের জন্য সহযোগীতা

চাইছেন প্রশাসনের। বিষয়টির সামাজিকভাবে

মিমাংসার জন্য লালমোহন উপজেলা নির্বাহী

কর্মকর্তা একটি বাড়িতে তাকে হেফাজতে রাখেন।

ইউএনও সামছুল আরেফিন দীপ্তিকে জানায় ৮ জুন

এমপি এলে বিষয়টির সুরাহা করবেন। কিন্তু ইউএনও

তাকে কথা দিয়েও সেই কথা রাখেননি। তিনিও

শেষ পর্যন্ত কোন সুরহা করতে পারেননি।